মেয়ে - জসীমউদ্দীন



আমাদের বাড়ি না আসিয়া তুই ভালো করেছিস মেয়ে,
আমরা কি আর এমন করিয়া সাজাতাম তোরে পেয়ে!
এ বাড়িতে তুই সন্ধ্যা-প্রদীপ শান্ত গৃহের কোণে,
এ বাড়ির তুই শুভশঙ্খ যে বাজিস সকল ক্ষণে ।
এ বাড়ির তুই মঙ্গলঘট বহিয়া শীতল বারি,
যে আসে নিকটে স্নেহ-মমতায় আপন হস যে তারি ।
এ বাড়ির তুই সন্ধ্যা-মালতী আঙিনার কোণে ফুটে,
বিছায়ে দিছিস সন্ধ্যার মেঘ আকাশ হইতে লুটে ।

আমাদের বাড়ি ছিলি বুলবুলি এ বাড়িতে হলি গান,
আমাদের বনে ছিলি তুই বেণু এ বাড়ি বাঁশির তান ।
আমাদের ঘরে ছিলি তুই ধারা এ বাড়িতে হলি নদী,
তটের রেখার গহনা পরিয়া চলেছিস নিরবধি ।
ঘুমায়ে আছিলি রঙিন ঝিনুক সাগরদীঘির তলে
মাণিক হইয়া হাসিস আজিকে স্বতী তারকার জলে ।
এ বাড়ির তুই আঙিনার কোণে সোনার দেউটি হয়ে
নিজেই দেবতা হয়ে রয়েছিস এ বাড়ির দেবালয়ে ।

(বার্ষিক শিশু-সাথী, ১৩৬৮)

Comments

Popular Posts